top news 24

অনলাইন ডেস্ক

মানুষের পেটের ভেতর আস্ত একটি মোবাইল ফোন। অবাক শোনা গেলেও এটাই সত্যি। গত সাত মাস ধরে মোবাইল ফোনটি ছিল এক যুবকের পেটের মধ্যেই। সম্প্রতি যুবকের পেটে করা হয় আলট্রাসনোগ্রাফি। আর সেই রিপোর্ট আসতেই চিকিৎসকদের চোখ কপালে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মিসরের রাজধানী কায়রোর একটি হাসপাতালে।

জানা যায়, পেটে প্রবল ব্যথা নিয়ে ওই হাসপাতালে ভর্তি হন ওই যুবক। হঠাৎ কেন ব্যথা তা কিছুতেই প্রথমে অনুসন্ধান করতে পারছিলেন না চিকিৎসকরা। এরপরেই ওই যুবকের পেটে আলট্রাসনোগ্রাফি করার কথা বলেন ওই হাসপাতালের চিকিৎসকরা। এরপরেই করা হয় আলট্রাসনোগ্রাফি।

এরপর রিপোর্ট দেখে রীতিমত চিকিৎসকরা হতবাক হয়ে যান। আস্ত একটি মোবাইল ফোন কিনা ২৮ বছরের ওই যুবকটির পেটের ভেতর দেখতে পান তারা। গত সাত মাস ধরেই ওটি পেটের মধ্যেই ছিল। সহকর্মীদের সঙ্গে মজা করতে গিয়ে এটি গিলে ফেলেছিল বলে চিকিৎসকদের জানায় যুবকটি। তার ধারণা ছিল এটি সে হজম করে ফেলতে পারবে।
দক্ষিণ কায়রোর আল ওয়াটান নামে ওই বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মো. আল জহোর বলেন, প্রথমে টিউমার মনে করে অস্ত্রোপচারের জন্য আল্ট্রাসনোগ্রাম করা হয়। কিন্তু এতে দেখা যায়, আস্ত একটি মোবাইল ফোনসেট। এরপর তাকে দ্রুত হাসপাতালের জরুরি অস্ত্রোপচার ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here