top news 24

online desk

ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা রজনীকান্তের শুটিং ফ্লোরের সাতজন করোনায় আক্রান্ত। সংগত কারণে বন্ধ করা হয়েছে শুটিং। হায়দরাবাদের রামোজি ফিল্ম সিটিতে রজনীকান্তের ‘অন্নাথা’র শুটিং চলছিল। রজনীকান্তের কোভিড-১৯ পরীক্ষায় রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তবে শুক্রবার সকালে উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যার কারণে হায়দরাবাদের এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাঁকে।
ভারতীয় ওই বেসরকারি হাসপাতালের আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ‘১০ দিন ধরে হায়দরাবাদে ছবির শুটিং করছিলেন রজনীকান্ত। সেটের কয়েকজন করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় আপাতত শুটিং বন্ধ।

২২ ডিসেম্বর রজনীকান্তের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিল, রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। এরপরও তিনি আইসোলেশনে ছিলেন।’বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে যে রজনীকান্তের করোনার কোনো রকম উপসর্গ নেই। শুধু রক্তচাপ ক্রমাগত ওঠানামার কারণে সতর্কতা হিসেবে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বর্ষীয়ান এই অভিনেতাকে। তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল। তবে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আসার পর এবং অন্য সব রিপোর্ট ভালো হলে হাসপাতাল থেকে ছাড়া হবে।চলতি মাসের শুরুতে রজনীকান্ত আবারও ঘোষণা দেন, তিনি রাজনীতিতে আসবেন। প্রায় দুই বছর ধরে বলছিলেন দক্ষিণ ভারতীয় এই তারকা রাজনীতিতে আসবেন। পরে ৩ ডিসেম্বর টুইটারে জানান, তিনি ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে দল গঠন করবেন। এপ্রিল-মে মাসে তামিলনাড়ুতে বিধানসভা নির্বাচন। সেখানে তাঁর দল জিতবে বলেও আত্মবিশ্বাসী তিনি।

টুইটারে রজনী বলেন, মানুষের সমর্থন নিয়ে বিধানসভা ভোটে জিতবেন এবং একটা সৎ, স্বচ্ছ, দুর্নীতিমুক্ত, জাতিভেদ ও ধর্মের ঊর্ধ্বে গিয়ে সরকার গঠন করবেন। ৩১ ডিসেম্বর দল সম্পর্কে বিস্তারিত জানাবেন। টুইট করার পর সাংবাদিকদের নিজের বাসভবনে রজনী বলেন যে তাঁর দল ২৩৪টি আসনেই লড়বে। কোভিডের জন্য তিনি রাজ্যে ঘুরতে পারেননি।

রজনীকান্তের আসল নাম শিবাজি রাও গায়কোয়াড়। ১৯৫০ সালের ১২ ডিসেম্বর এক মারাঠি পরিবারে জন্ম হয় তাঁর। মা রমাবাই ছিলেন গৃহবধূ ও বাবা রামোজি রাও গায়কোয়াড় ছিলেন পুলিশের কনস্টেবল। পর্দায় অভিষেক ১৯৭৫ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত তামিল সিনেমা ‘অপূর্ব রাগাঙ্গাল’-এ অভিনয়ের মাধ্যমে। ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি বিদেশি চলচ্চিত্রসহ অন্যান্য দেশের সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন। ভারত সরকার রজনীকান্তকে ‘পদ্মভূষণ’ ও ‘পদ্মবিভূষণ’ পুরস্কারে সম্মানিত করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here