Top news 24

অনলাইন ডেস্ক

সৌদি আরবের একটি বিমানবন্দরে হামলা চালিয়েছে ইয়েমেনের হাউথি সশস্ত্র গোষ্ঠী। এতে একটি বেসামরিক বিমানে আগুন লেগে যায়।

বুধবার সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন আল-আখবারিয়ার বরাতে এ খবর দিয়েছে আল জাজিরা।

ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশনের পক্ষ থেকে সংবাদমাধ্যমটিকে জানানো হয়েছে, আভা ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে হাউথি মিলিশিয়ারা ন্যক্কারজনক সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে।… এতে একটি বেসামরিক বিমানে আগুন লেগে যায়। পরে আগুন নেভানো হয়েছে।

হামলার পরপরই এর দায় স্বীকার করেছে হাউথি। সংগঠনটির মুখপাত্র ইয়েহায়া সারেই জানিয়েছেন, সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলীয় বিমানবন্দরটিতে হামলার জন্য চারটি বোমাবাহী ড্রোন ব্যবহার করা হয়েছে।

ইয়েমেনের ওপর সৌদি জোটের লাগাতার বিমান হামলা এবং অবরোধের জবাবে এ হামলা চালানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে সৌদি জোটের মুখপাত্র কর্নেল তুর্কি আল মালিকি বলেছেন, হাউথিদের দুটি ড্রোনকে তারা আটক করতে সক্ষম হয়েছে। এই হামলাকে তিনি দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের বেসামরিক নাগরিকদের টার্গেট করে ‘ঠাণ্ডা মাথায় আক্রমণ’ বলে অভিহিত করেছেন।

সম্প্রতি ইয়েমেনে যুদ্ধ বন্ধ ও হাউথিদের সন্ত্রাসী তালিকা থেকে বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এই সিদ্ধান্তের জন্য বাইডেন প্রশাসনকে স্বাগত জানিয়েছে হাউথি সরকার। আর যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তকে ভুল শোধরানোর প্রথম পদক্ষেপ বলে মন্তব্য করেছে ইরান। এরই মধ্যেই বিষয়টি নিয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে কথা বলেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ক্ষমতাগ্রহণের পর থেকে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিতর্কিত সব সিদ্ধান্ত বাতিল করছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ইয়েমেন ইস্যু। গত সপ্তাহে ইয়েমেনে যুদ্ধ বন্ধে সৌদির প্রতি আহ্বান জানান বাইডেন। একই সঙ্গে হাউথিদের সন্ত্রাসী তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার পরিকল্পনাও করছে তার প্রশাসন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here