top news 24

অনলাইন ডেস্ক

তালাক দেওয়ার কারণে সাবেক স্ত্রীকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে মেহেরপুর পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ মঞ্জুরুল কবির রিপনের বিরুদ্ধে। সোমবার বিকালে মেহেরপুর শহরের নতুনপাড়ার মোড়ে এই পিটানোর ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ করেছেন সাবেক স্ত্রী শারমিন আক্তার মিষ্টি। শারমিন আক্তার মিষ্টি মেহেরপুর শহরের থানা পাড়ার আব্দুল আওয়াল খোকনের মেয়ে।
মিষ্টি তার অভিযোগে বলেন, এর আগেও তার আরও একটি স্ত্রী ছিল। সেই স্ত্রীও খারাপ আচরণ সহ্য করতে না পেরে রিপনকে তালাক দিয়ে চলে যায়। পরে ২০১৫ সালের ১৩ ডিসেম্বর আমাকে জোড় করে বিয়ে করে। বিয়ের পর জানতে পারি তিনি বেশ কিছু মেয়ের সাথে পরকীয়ায় জড়িত। আমি প্রতিবাদ করলে আমাকে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করে। তার বাবা-মাও বিষয়টি জানে, কিন্তু কিছুই বলে না। উল্টো আমার ওপর তারাও নির্যাতন করেন। এই নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে দিন-দশেক আগে আমি রিপনকে তালাক দেই। এরপর থেকে রিপনের ভয়ে আমি পালিয়ে বেড়াচ্ছিলাম। কিন্তু সোমবার বিকালে মেহেরপুর নতুন পাড়ার মোড়ে আমাকে দেখে আমার চোখে-মুখে কিল-ঘুষি মেরে মারাত্মক জখম করে।
তিনি জানান, স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। এ ঘটনায় কাউন্সিলর মঞ্জুরুল কবির রিপনের বিরুদ্ধে মেহেরপুর সদর থানায় মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here