আবুল কাসেম

-ঃবিশেষ প্রতিনিধিঃ

রাজধানী মিরপুরে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আজ ২১ মার্চ গাবতলী বাস টার্মিনাল এলাকার বিভিন্ন জায়গায় মাস্ক বিতরন করেন মিরপুর বিভাগের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার (এডিসি) মাহমুদা আফরোজ লাকি
এ সময় মাহমুদা আফরোজ লাকি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক আই,জি,পি স্যারের নির্দেশ ক্রমে মাস্ক বিতরন করছি বলে তিনি জানান।
মিরপুর বিভাগের দারুস সালাম জোনের এ, ডি, সি,মাহমুদা আফরোজ লাকী বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় বাংলাদেশ পুলিশ জনগণের পাশে ছিলো এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। মহামারি করোনা সহ বিভিন্ন দুর্যোগের সময় বাংলাদেশ পুলিশের নিজের জীবন বাজী রেখে কাজ করে চলছে অবিরত।
গত বছর দেশের সাধারণ মানুষের পাশে একমাত্র বাংলাদেশ পুলিশ সদস্যরাই বিশেষ করে ছিলো। পুলিশ সদস্যরা নিজের জীবন বাজী রেখে নিজে করোনাতে আক্রান্ত হয়েও কখনো থেমে থাকেনি। পরাজিত সৈনিকের মতো যুদ্ধের ময়দান ছেড়ে পালিয়ে যাননি পুলিশ, জীবন দিয়ে দেশের জনগণের সেবা করতে গিয়ে পৃথিবী ছেড়ে চিরবিদায় নিয়েছেন বহু”পুলিশ সদস্য।
নিহত পুলিশ সদস্যদের পরিবারের খোজ খবর কেউ নিয়েছেন? দুই একজন পুলিশ সদস্যদের দোষ গুলোই আপনাদের চোঁখে পড়ে তা নিয়ে সারাদেশে হৈ-হুল্লোড় শুরু করে দেন, পুলিশ আপনার জীবন রক্ষা করতে গিয়ে প্রান দিলো কই সেটি নিয়ে টকশো হয় না, নিহত পুলিশ সদস্যের প্রতি এতোটুকুও সম্মান প্রদর্শন দেখায় না কেউ! পুলিশ কি এদেশের মানুষ নয়? আলোচনা সমালোচনা সব জায়গাতেই রয়েছে। আসুন পুলিশ জনগণ এক হয়ে কাজ করি পুলিশ”ই জনতা, জনতা”ই পুলিশ এই স্লোগান-কে সামনে রেখে এগিয়ে যাই। যেখানে মৃত্যুর ভয়ে বাবা ছেলের লাশ রেখে পালিয়ে গেছে, সেই লাশের জানাযা’সহ দাফন কাফনের ব্যবস্থা করেছে এই পুলিশ ।
তিনি আরো বলেন, পুলিশ সব সময় জনগনের পাশে থেকে কাজ করছে, এবং মানুষের যে কোন বিপদে আপদে পাশে থেকে পুলিশ আপনাকে সহযোগিতা করে। শুধু করোনা কালীন সময়ই নয় দেশের যেকোন বিপদে নিজের জীবনের পরোয়া না করেই নিসন্দেহে সামনে এগিয়ে যায় এই পুলিশ সদস্যরাই।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, দারুস সালাম জোনের এ,সি, মিজান এবং দারুস সালাম থানার ওসি তদন্ত মোঃ দুলাল হোসেন।
এদিকে শাহ্আলী থানা এলাকায় মাস্ক বিতরইণ করেন শাহ্আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অফিসার ইনচার্জ এ,বি,এম, আসাদুজ্জামান”সহ একাধিক পুলিশ সদস্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here