top news 24

শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুরে যৌতুকের দাবিতে রেজিয়া বেগম (২৬) নামে ২ সন্তানের জননী এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকদের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার রাতে শহরের রাজবল্লভপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

রেজিয়া শহরের চকপাঠক এলাকার মৃত আনিস মিয়ার মেয়ে ও দুই সন্তানের জননী। এ ঘটনায় পুলিশ ৩ জনকে আটক করলেও গৃহবধূর স্বামী শহীদসহ (৩০) শ্বশুরবাড়ির অন্যান্য লোকজন পলাতক রয়েছে। আটককৃতরা হচ্ছেন রেজিয়ার জা’ বিথী আক্তার, চাচাতো দেবর সুজন মিয়া ও মামাশ্বশুর আব্দুল মোতালেব।

জানা যায়, প্রায় ১০ বছর পূর্বে শেরপুর শহরের রাজবল্লভপুর এলাকার আক্তার হোসেনের ছেলে শহীদের সাথে বিয়ে হয় রেজিয়া বেগমের। বিয়ের সময় যৌতুক বাবদ ১ লক্ষ টাকা দিলেও আরও যৌতুকের জন্য রেজিয়া বেগমের উপর নির্যাতন চালিয়ে আসছিল স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন। কিন্তু রেজিয়ার পিতা না থাকায় ও ভাইয়ের দরিদ্রতার কারণে যৌতুক দিতে ব্যর্থ হওয়ায় বৃহস্পতিবার রাতে স্বামী শহীদসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন তার উপর শারীরিক নির্যাতন চালালে সে মারা যায়। পরে তাকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here