top news 24

অনলাইন ডেস্ক

১৩ বছর আগে বেআইনিভাবে রিলায়েন্স পেট্রোলিয়ামের শেয়ার হাতবদলের অভিযোগে ভারতের রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ এবং এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর মুকেশ আম্বানিকে জরিমানা করেছে দেশটির বাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা সিকিউরিটিস অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড অব ইন্ডিয়া (সেবি) জরিমানার অংক যথাক্রমে ২৫ কোটি এবং ১৫ কোটি রূপি।

রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ এবং মুকেশ আম্বানির পাশাপাশি জরিমানা করা হয়েছে নবি মুম্বাই এসিজেড এবং মুম্বাই এসিজেডকে। তাদের ক্ষেত্রে জরিমানার অংক যথাক্রমে ২০ কোটি ও ১০ কোটি রূপি।
জরিমানার পর মুকেশ-রিলায়েন্স শিল্প পরিবারের সব ধরনের অনিয়মের দায় মুকেশের বলে ঈঙ্গিত করেন সেবির অ্যাডজুডিকেটিং অফিসার বি জে দিলীপ।

লগ্নিকারীরা জানতেন না যে আসলে এই আগাম লেনদেনের পেছনে রয়েছে খোদ রিলায়েন্সই। তারা ১২টি সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করে বেআইনি লেনদেনে অংশ নিয়ে মুনাফা করেছিল। এতে আরপিএলের শেয়ারের দামে প্রভাব পড়েছিল এবং ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলেন লগ্নিকারীরা।

২০০৭ সালের মার্চে রিলায়েন্স পেট্রোলিয়ামের ৪ দশমিক ১ শতাংশ শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের (আরআইএল)। ওই বছর নভেম্বরে শাখা সংস্থাটির শেয়ার আগাম বাজারে লেনদেন হয়। ২০০৯ সালে সেটিকে নিজেদের সঙ্গে মেশায় আরআইএল। এক্ষেত্রে আগাম লেনদেনের নিয়ম ভাঙা হয়েছে বলে অভিযোগ এনেছিল সেবি। এ মামলা রিলায়েন্স সমঝোতার মাধ্যমে মেটাতে চাইলেও রাজি হয়নি তারা।

দীর্ঘ তদন্তের পরে ২০১৭ সালের মার্চে রিলায়েন্স এক বছর শেয়ারবাজারে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে ডেরিভেটিভ লেনদেন করতে পারবে না বলে নির্দেশ দেয় সেবি। আরও ১২টি সংস্থাকেও এ নির্দেশ দেওয়া হয়। পাশাপাশি ‘অন্যায়ভাবে মুনাফা করা’ ৪৪৭ কোটি রুপি ফেরত দিতেও বলা হয় রিলায়েন্সকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here