top news 24

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের কর্নাটকে ভয়াবহ বিস্ফোরণে অন্তত আটজন নিহত হয়েছেন। তবে বোমা বিস্ফোরণ, নাকি অন্য কিছু তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। খবর আনন্দবাজারের।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টা ২০ মিনিটে বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটেছে। বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল যে ১৫ থেকে ২০ কিলোমিটার এলাকায় এই কম্পন অনুভূত হয়েছে।শুধু তাই নয়, বিস্ফোরণ স্থলের কাছাকাছি এলাকায় রাস্তায় বড় ফাটল দেখা গেছে। বহু বাড়ির জানলার কাচ ভেঙে পড়েছে। আতঙ্কে লোকজন রাস্তায় বেরিয়ে আসেন। এমনকি পার্শ্ববর্তী চিকমাগালুর জেলার একাংশে এই কম্পন অনুভূত হয়।

স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান, ‘হঠাৎ করে ঘরবাড়ি সব দুলে ওঠে। ভেবেছিলাম ভূমিকম্প হচ্ছে। আতঙ্কে ঘর ছেড়ে রাস্তায় বেরিয়ে আসি।’

তবে প্রাথমিকভাবে পুলিশ মনে করছে, আবালাগিরি গ্রামের হোনাসুদির কোনো পাথরখনিতে বিস্ফোরণ হয়ে থাকতে পারে। গোটা এলাকা ইতিমধ্যেই সিল করে দেওয়া হয়েছে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অনুরাধা বলেন, ‘ কর্নাটকের শিবমোগা থেকে ৫-৬ কিলোমিটার দূরে একটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। কয়েক জনের মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।’

পুলিশের এডিজি প্রতাপ রেড্ডি জানান, শিবমোগা গ্রামীণ থানার কাছাকাছি এলাকাতেই বিস্ফোরণ হয়েছে। একটা ক্ষতিগ্রস্ত ট্রাক দেখতে পাওয়া গেছে। তবে এটা স্পষ্ট নয় যে, ট্রাকে কোনো বিস্ফোরক ছিল কি না বা বিস্ফোরণে ট্রাকটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কি না।

রেড্ডি বলেন, ‘কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। তবে পুলিশ বিস্ফোরণ স্থলে ঢুকতে পারেনি। আশঙ্কা করা হচ্ছে আরও বিস্ফোরক থাকতে পারে সেখানে। তবে গোটা এলাকা ইতিমধ্যেই সিল করে দেওয়া হয়েছে।’

সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানায়, খনির কাজের জন্য ট্রাকে করে বিস্ফোরক নিয়ে যাওয়ার সময় বিস্ফোরণ ঘটে। ওই ট্রাকে থাকা বেশ কয়েকজন নিহত হয়েছেন। ট্রাকটি এমনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল যে নিহতদের কাউকে চিহ্নিত করা যায়নি।

তবে এটা যে ভূমিকম্প নয় তা জানিয়েছেন জেলার বিপর্যয় দফতরের কর্মকর্তা জগদীশ। এক সংবাদ সংস্থাকে তিনি জানান, তাদের যন্ত্রে ভূমিকম্পের কোনো তথ্য ধরা পড়েনি।

এদিকে, শিবমোগার ঘটনায় শুক্রবার সকালে টুইট করে শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, ‘শিবমোগার ঘটনা অত্যন্ত বেদনাদায়ক। নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি। এই ঘটনায় আহত এবং নিহতদের পরিবারকে সব রকম সহযোগিতা করবে রাজ্য সরকার।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here