top news 24

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের হাথরসকাণ্ডের ক্ষত এখনও রয়ে গেছে। এর মধ্যেই ফের দলিত নারীকে গণধর্ষণের অভিযোগ সামনে এলো। শুধু তাই নয়, অত্যাচারের পর ওই নারী ও তার শিশু সন্তানকে ধর্ষকরা খালে ফেলে দেয় বলেও পুলিশ সূত্রে খবর। শেষ পর্যন্ত ওই নারীকে বাঁচানো গেলেও, পানিতে ডুবে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর জখম অবস্থায় ওই নারী হাসপাতালে ভর্তি। বিহারের বক্সারের এই মর্মান্তিক ঘটনাকে ঘিরে নতুন করে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, বক্সারের ওঝা বারাও গ্রামে ব্যাঙ্কে যাওয়ার পথে ওই নারীকে ঘিরে ধরে এক দল দুষ্কৃতী। তারা ওই নারীকে অপহরণ করে। এরপর তাকে ধর্ষণ করে খালে ফেলে দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে নারীর ৫ বছরের সন্তানকেও পানিতে ফেলে দেওয়া হয়।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, নারীর চিৎকার শুনে ছুটে আসেন আশপাশের বাসিন্দারা। তারা ওই নারী এবং তার শিশুটিকে উদ্ধার করেন। কিন্তু শিশুটিকে বাঁচানো যায়নি। ওই নারীকে গুরুতর অবস্থায় বক্সারের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বক্সারের এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, ‘নির্যাতিতার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় অভিযোগও দায়ের হয়েছে। শিশুটির মরদেহের ময়নাতদন্ত হয়েছে।’ পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই ঘটনায় মোট সাতজন জড়িত। তার মধ্যে দুজনকে চিহ্নিত করা গেছে। অভিযুক্তদের একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বাকিদের খোঁজ করছে পুলিশ।

হাথরসে বছর কুড়ির এক দলিত তরুণীকে গণধর্ষণ এবং হত্যা নিয়ে ভারতজুড়ে আলোড়ন অব্যাহত। তাতে নতুন করে ইন্ধন জোগাল বক্সারের এই ঘটনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here