top news 24

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মেয়েকে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় সড়কে দাঁড় করিয়ে মাকে জুতা দিয়ে পেটানোর ঘটনা ঘটেছে। শনিবার দুপুরে জেলা শহরের দক্ষিণ পৈরতলা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় ওই স্কুল ছাত্রীর মা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে।

ওই স্কুল ছাত্রীর পরিবার ও স্কুল সূত্রে জানা যায়, শহরের পৌর এলাকার সরকার পাড়ার সেন্ট্রাল রেসিডেন্সিয়াল স্কুলের ৮ম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে ওই ছাত্রী। দক্ষিণ পৈরতলায় বাসা থেকে স্কুলে আসা যাওয়ার সময় ওই স্কুল ছাত্রীকে প্রায় সময় উত্ত্যক্ত করতো একই এলাকার দুলু মিয়ার ছেলে ইমন। এই ঘটনায় ওই স্কুল ছাত্রীর পরিবার প্রতিবাদ করলে তাদের নানানভাবে হুমকি প্রদান করে।

ঘটনাটি স্কুলের প্রধান শিক্ষককে জানালে, প্রধান শিক্ষক বিষয়টি স্থানীয় পৌর কাউন্সিলরকে জানাতে বলেন। পৌর কাউন্সিলরকে জানালেও তিনি তেমন কোনো ব্যবস্থা নেননি। পরবর্তীতে ওই স্কুল ছাত্রীর পরিবার তাদের ভাড়া বাসা বদল করে ফেলে। তারপরও ওই বখাটে স্কুল ছাত্রীর বাসার সামনে এসে বসে থাকে।
শনিবার দুপুরে ওই স্কুল ছাত্রীর মা তাদের পুরাতন বাসা এলাকার একটি দোকান থেকে মালামাল আনতে যায়। এসময় বখাটে ইমন ওই স্কুল ছাত্রীর মাকে পথিমধ্যে পেয়ে পায়ের জুতা খুলে মারধর করে আহত করে। তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে ওই স্কুল ছাত্রীর পরিবার।

ওই ছাত্রীর স্কুলের প্রধান শিক্ষক বাপ্পি আহমেদ বলেন, প্রায় এক মাস আগে ওই বখাটের ইভটিজিংয়ের ঘটনাটি আমাদের অবহিত করে ছাত্রীর পরিবার। আমি স্থানীয় কাউন্সিলরকে জানাতে বলি। কিন্তু তার মায়ের উপর হামলার ঘটনা খুবই জঘন্য হয়েছে।

খবর পেয়ে বিকেলে দক্ষিণ পৈরতলা এলাকার একটি স’মিল থেকে বখাটে ইমনকে আটক করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here