top news 24

 ভাঙ্গা উপজেলার হামেরদী ইউনিয়নের সিংগারিয়া বিল থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে গত সোমবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে লাশটি উদ্ধার করে থানায় আনে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয় ওই নারীর মরদেহ। ওই নারী পেশায় একজন ঘটক বলে জানিয়েছে স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্র।

নিহত ওই নারীর নাম মহিতুন বেগম (৪০)। তিনি জেলার নগরকান্দা উপজেলার কাইচাইল ইউনিযনের কান্দি গ্রামের নিজাম তালুকদারের স্ত্রী। নিহত মহিতুন বেগম এলাকাবাসীর কাছে বিয়ের ঘটক হিসেবেই বেশ পরিচিত। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে শাহজালাল বাদি হয়ে মঙ্গলবার ভাঙ্গা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ২ জনকে আটকের কথা জানালেও তাদের পরিচয় নিশ্চিত করেনি।এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ভাঙ্গা উপজেলার হামেরদী ইউনিয়নের সিংগারিয়া গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে শান্ত কিছু দিন আগে বিয়ে করেন। এই বিয়ের ঘটক ছিল মহিতুন বেগম। ঈদের দিন (শনিবার) দুপুরে মনিরের বাড়িতে ঐ মহিলা ঘটক মহিতুন বেগম তার পাওনা ফি চাইতে গেলে তাদের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। এরপর থেকেই মহিতুন ঘটকের কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। সোমবার দিবাগত রাতে স্থানীয় জেলেরা মাছ ধরতে বিলের মধ্যে গেলে জেলেদের লাইটের আলোতে পানির নিচে মানুষের লাশ লোহার রড দিয়ে বাধা দেখতে পায়।

জেলেরা বিষয়টি পুলিশকে অবহতি করলে পুলিশ ও ভাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পানির নিচ থেকে লাশটি উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে নিহত ওই নারীর ছেলে শাহজালালের বলেন, ঘটকালির টাকা না দেওয়ার জন্য মনিরই তার মাকে মেরে পানিতে ডুবিয়ে রেখেছিল। 

তবে লাশ উদ্ধারের ঘটনার পর থেকে মনিরের পরিবারের সকলে পলাতক থাকায় তাদের বক্তব্য জানা যায়নি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ভাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবদুল্লাহ জানান, এ ব্যাপারে নিহত ওই নারীর ছেলে শাহজালাল বাদি হয়ে মঙ্গলবার থানায় একটি হত্যা মামলাদায়ের করেছেন। তিনি বলেন, এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here