বিএনপি ক্ষমতায় গেলে শিক্ষিত বেকারদের চাকরি দেওয়া হবে, চাকরি না হওয়া পর্যন্ত তাদের বেকার ভাতা দেওয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) নিজের নির্বাচনী এলাকা বগুড়া-৬ আসনে গণসংযোগকালে ফখরুল এ প্রতিশ্রুতি দেন। বিএনপি মহাসচিব বলেন, গেলো ১০ বছরে বগুড়ায় আওয়ামী লীগ কোনো উন্নয়ন করেনি। বিমাতাসুলভ আচারণ করেছে। অথচ বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে সারাদেশের মতো বগুড়ায়ও ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। তিনি প্রতিশ্রুতি দেন, বিএনপি ক্ষমতায় গেলে বগুড়াকে বিভাগ করা হবে। সিটি কর্পোরেশন করা হবে। এখানে পূর্ণাঙ্গ বিমানবন্দর করা হবে। একইসঙ্গে বগুড়ায় একটি পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে। সরকারকে ‘হামলা-মামলাবাজ’ আখ্যা দিয়ে ফখরুল বলেন, এই সরকারকে দেশের মানুষ আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। দেশের মানুষ এখন পরিবর্তন চায়। ৩০ ডিসেম্বর ভোটের মাধ্যমে দেশবাসী এই ‘জুলুমবাজ’ সরকারের পরিবর্তন ঘটাবে বলেও দাবি করেন ফখরুল। বেলা সাড়ে ১১টার পর থেকে সদরের ১১টি ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রতকি ধানের শীষের পক্ষে ভোট চেয়ে গণসংযোগ শুরু করেন ফখরুল। সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত গণসংযোগ করেন বিএনপির এ প্রার্থী। এসময় তার সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও বগুড়া-৬ আসনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান, জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চান, সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাফতুন আহমেদ খান রুবেলসহ স্বেচ্ছাসেবকদল, যুবদল, ছাত্রদলের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেন।

বিশেষ প্রতিনিধি : 

বিএনপি ক্ষমতায় গেলে শিক্ষিত বেকারদের চাকরি দেওয়া হবে, চাকরি না হওয়া পর্যন্ত তাদের বেকার ভাতা দেওয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) নিজের নির্বাচনী এলাকা বগুড়া-৬ আসনে গণসংযোগকালে ফখরুল এ প্রতিশ্রুতি দেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, গেলো ১০ বছরে বগুড়ায় আওয়ামী লীগ কোনো উন্নয়ন করেনি। বিমাতাসুলভ আচারণ করেছে। অথচ বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে সারাদেশের মতো বগুড়ায়ও ব্যাপক উন্নয়ন করেছে।

তিনি প্রতিশ্রুতি দেন, বিএনপি ক্ষমতায় গেলে বগুড়াকে বিভাগ করা হবে। সিটি কর্পোরেশন করা হবে। এখানে পূর্ণাঙ্গ বিমানবন্দর করা হবে। একইসঙ্গে বগুড়ায় একটি পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে।

সরকারকে ‘হামলা-মামলাবাজ’ আখ্যা দিয়ে ফখরুল বলেন, এই সরকারকে দেশের মানুষ আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। দেশের মানুষ এখন পরিবর্তন চায়।

৩০ ডিসেম্বর ভোটের মাধ্যমে দেশবাসী এই ‘জুলুমবাজ’ সরকারের পরিবর্তন ঘটাবে বলেও দাবি করেন ফখরুল।

বেলা সাড়ে ১১টার পর থেকে সদরের ১১টি ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রতকি ধানের শীষের পক্ষে ভোট চেয়ে গণসংযোগ শুরু করেন ফখরুল। সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত গণসংযোগ করেন বিএনপির এ প্রার্থী।

এসময় তার সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও বগুড়া-৬ আসনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান, জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চান, সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাফতুন আহমেদ খান রুবেলসহ স্বেচ্ছাসেবকদল, যুবদল, ছাত্রদলের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here