top news 24

বগুড়া প্রতিনিধি

বগুড়ার সোনাতলায় দিন দুপুরে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে যুবককে খুন করেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের গনসারপাড়া গ্রামের মোস্তাফিজার রহমান প্রামানিকের ছেলে রাকিবুল হাসান চৈতাকে (২৭) গতকাল সোমবার সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে সারিয়াকান্দি উপজেলার নারচী ইউনিয়নের শেখাহাতী গ্রামের কতিপয় মুখচেনা ব্যক্তি মোবাইল ফোনে গণকপাড়া চান্দিনার বাজার এলাকায় ডেকে নেয়। সেখানে একটি চায়ের দোকানে বসে চৈতা ও তার পরিচিত কিছু যুবক খোশগল্পে মেতে ওঠে।


এ সময় অতর্কিতভাবে শেখাহাতী গ্রামের মুখচেনা কতিপয় যুবক হাতে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোডা নিয়ে এসে তার উপর হামলা চালায়। সে গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা স্থানীয় লোকজনদেরকে ভয়ভীতি দেখিয়ে একটি মোটরসাইকেল যোগে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। এরপর সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার হাতের ডান কব্জি কেটে ফেলে দেয়। এ সময় চৈতার আত্মীয়স্বজন খোঁজ পেয়ে তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে বগুড়ার শজিমেক হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলা আড়াইটায় তার মৃত্যু হয়।

তাদের বাড়ির পার্শ্ববর্তী শেখাহাতী গ্রামের এনামুল হকের পুত্র খোকন মিয়া ও শাকিব ও মামুন নামের তিনজন তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। 

সন্ত্রাসীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নিহত চৈতার মৃত্যুর সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন উত্তেজিত হয়ে পড়ে। এ ঘটনার পর এলাকায় টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় রক্ষক্ষয়ী সংঘর্ষ ঘটার আশংকা রয়েছে। 

তাদের বাড়ির পার্শ্ববর্তী শেখাহাতী গ্রামের এনামুল হকের পুত্র খোকন মিয়া ও শাকিব ও মামুন নামের তিনজন তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। 

সন্ত্রাসীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নিহত চৈতার মৃত্যুর সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন উত্তেজিত হয়ে পড়ে। এ ঘটনার পর এলাকায় টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় রক্ষক্ষয়ী সংঘর্ষ ঘটার আশংকা রয়েছে। 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here