top news 24

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নুসরাত ফারিয়া গিয়েছিলেন চিকিৎসকের কাছে। কোভিড–১৯ পজিটিভ জানার পর পরামর্শ নিয়েছেন। চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় বিশ্রামে থাকতে হবে তাঁকে। এ কারণে চলমান ‘যদি কিন্তু তবুও’ ছবির শুটিং পেছানো হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে একটি টেলিভিশন চ্যানেলের অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে দলীয় নৃত্যে অংশগ্রহণ করেছিলেন ফারিয়া। সেখান থেকে ফেরার পর শরীর খারাপ লাগছিল বলে কোভিড-১৯ টেস্টের জন্য নমুনা দেন তিনি। গতকাল শুক্রবার দুপুরে পরীক্ষার ফল হাতে পেয়ে জানতে পারেন তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। মুঠোফোনের দুশ্চিন্তাগ্রস্ত কণ্ঠে নিজের অসুস্থতার খবর নিশ্চিত করেছেন ফারিয়া। তিনি বলেন, ‘করোনার তেমন লক্ষণ আমার ভেতরে নেই। শুধু একটু কাশি হচ্ছে। ডাক্তার বলেছেন বিশ্রাম নিতে। এখন বাড়িতে আইসোলেশনে আছি।’ নুসরাত ফারিয়া কাজ করছিলেন ‘যদি কিন্তু তবুও’ নামের একটি ওয়েব ফিল্মে। জানা গেছে, ওই ওয়েব ফিল্মের পরিচালকও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত।

করোনাকালেও বেশ সক্রিয় ছিলেন নুসরাত ফারিয়া। নৃত্যশিল্পী হৃদি শেখকে নিয়ে একটি গাড়ির শোরুমে নাচ করেছেন তিনি। সেই ভিডিওতে নাচ করার পাশাপাশি ‘আমি চাই থাকতে’ শিরোনামে গানটিও গেয়েছিলেন তিনি। গানটির সংগীতচিত্র প্রকাশিত হয়েছিল ইউটিউবে তাঁদের চ্যানেলে। করোনা মহামারির ভেতরেই হবু বরকে নিয়ে ফারিয়া বেড়িয়ে এসেছেন দুবাই থেকে। জানিয়েছিলেন, মহামারি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই শুরু হবে তাঁর বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা।

ইতিমধ্যে বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেছেন ফারিয়া। বাংলাদেশে তাঁর করা ছবিগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘ধ্যাততেরিকি’, ‘প্রেমী ও প্রেমী’, ‘শাহেনশাহ’, ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ‘বিবাহ অভিযান’, ‘হিরো ফোরটুয়েন্টি’, ‘ইন্সপেক্টর নোটিকে’, ‘আশিকী’, ‘বস টু’ এবং ভারত–বাংলাদেশ যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হয়েছে ‘বাদশা’ ছবিটি। নির্মিতব্য ছবির তালিকায় রয়েছে ‘অপারেশন সুন্দরবন’সহ বেশ কয়েকটি ছবি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here