টপ নিউজ 24

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের ওপর হামলার প্রতিবাদে দ্বিতীয় দিনের মতো সড়ক অবরোধ চলছে।

আজ রবিবার সকাল থেকে উপজেলার বসুরহাট সড়ক, চাপরাশিরহাট সড়ক, বাংলাবাজারসহ বিভিন্ন সড়কে গাছের গুড়ি ফেলে ও টায়ার জ্বালিয়ে যান চলাচলে বাধা দেয় অবরোধকারীরা। এ সময় কাদের মির্জার বিরুদ্ধে নানা স্লোগান দেয় তারা। আইন শৃঙ্খলাবাহিনী সড়কে ফেলে রাখা গাছের গুড়িসহ প্রতিবন্ধকতা সরিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছে। তবে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বেশিরভাগ সড়কেই যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

শনিবার সকালে বসুরহাটে ইসলামী ব্যাংকের সামনে মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারীদের হামলার শিকার হন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল। এ ঘটনার প্রতিবাদে কোম্পানীগঞ্জে গতকাল দুপুর ১২টা থেকে ৪৮ ঘন্টার অবরোধ কর্মসূচি ডাক দেয় তার অনুসারীরা।

এদিকে, শনিবার সকালে মেয়র কাদের মির্জা তার ৩০-৩৫ জন অনুসারী নিয়ে বসুরহাট বাজারে মহড়া দিচ্ছিলেন। এসময় বাদল ও উপজেলা আ.লীগ নেতা হাসিব আহসান আলাল ঢাকার উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। তারা বসুরহাট বাজারের ইসলামি ব্যাংকের সামনে দাঁড়ালে কাদের মির্জার নির্দেশে তার অনুসারীরা বাদল ও আলালের ওপর হামলা চালায়। এসময় বাদলকে মারধর করলে তার কানের একটি অংশ ছিঁড়ে যায়। পরে একজন রিকশাচালক তাকে উদ্ধার করে প্রথমে থানায় নিয়ে যায়। পরে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য বাদলকে ঢাকায় পাঠানো হয়। এসময় হামলাকারীরা বাদলের ব্যক্তিগত গাড়িটিও ভাঙচুর করে ও হাসিব আহসান আলালকে পিটিয়ে আহত করে বলে অভিযোগ ওঠে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here