top news 24

বগুড়া প্রতিনিধি

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের মালগুদাম এলাকায় শিমুল হোসেন (৩২) নামের এক প্রতিবন্ধী হোটেল কর্মচারী খুন হয়েছেন। বুধবার রাতের কোনো এক সময় এই খুনের ঘটনা ঘটে।

শিমুল হোসেন সান্তাহার ইয়ার্ড কলোনী মাস্টারপাড়া এলাকার শাহাজাহান আলীর ছেলে। তিনি সান্তাহার স্টেশন রোডে অবস্থিত বিসমিল্লাহ হোটেলের কর্মচারী ছিলেন। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ চারজনকে আটক করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সান্তাহার শহরের মালগুদাম এলাকায় বিসমিল্লাহ হোটেলের মিষ্টি ও দই তৈরির একটি কারখানা রয়েছে। সেখানে শিমুল রাতে ছিলেন। রাতের কোনো এক সময় সেখানে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়।
বৃহস্পতিবার সকালে পাশের দোকানের দেলোয়ার হোসেন নামের একজন শিমুলকে ডাকতে গেলে তার কোনো সাড়া না পাওয়ায় দরজার ফাঁক দিয়ে শিমুলের দেহ মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন। পরে আশপাশের লোকজনকে ডেকে ঘরে ঢুকে শিমুলের মরদেহ দেখতে পায়। তখন শিমুলের মুখ বালিশ ও কাঁথা দিয়ে জড়ানো ছিল।

লাশের সুরুতহালের দায়িত্বে থাকা সান্তাহার টাউন পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক আব্দুল ওয়াদুদ জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শিমুলকে বালিশ ও কাঁথা দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

বিসমিল্লাহ হোটেলের মালিক এমরান বলেন, শিমুল শারীরিক প্রতিবন্ধী এবং অত্যান্ত নিরীহ ও শান্ত প্রকৃতির মানুষ ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here