top news 24

বগুড়া প্রতিনিধি

বগুড়ার শেরপুরে খানপুর ইউনিয়নে খানপুর দহপাড়া এলাকায় এক প্রতিবন্ধী কিশোরী (১৪) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। পরে ধর্ষককে বাঁচাতে গ্রাম্য মাতব্বররা ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে ওই গ্রামে সালিশি বৈঠক করেও ব্যর্থ হয়। এদিকে শেরপুর থানায় কিশোরীর বাবা শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার (০৬আগস্ট) রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। 

মামলার ঘটনায় তিন গ্রাম্য মাতব্বরকে গ্রেফতার করা হয়। তারা হলেন- ওই গ্রামের লোকমান হোসেন (৫০), আব্দুল লতিফ (৪৫) ও প্লাবন সরকার (৩৫)।গত ৫ আগস্ট বিকেলে উপজেলার খানপুর দহপাড়া গ্রামের সোলায়মান আলীর ছেলে ঈমান আলী (৪০) একই গ্রামের শফিকুল ইসলামের প্রতিবন্ধী কিশোরী মেয়েকে কৌশলে নিজ বাড়িতে নিয়ে যায় ও নানা প্রলোভন দিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে ওই কিশোরীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ঈমান আলীসহ নয়জনকে অভিযুক্ত করে থানায় একটি মামলা দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে তিন গ্রাম্য মাতব্বরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া এই ঘটনার মূল নায়কসহ বাকি অন্যান্য অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও দাবি করেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here