পিরোজপুরের চাঞ্চল্যকর সাবেক চেয়ারম্যান কে পিটিয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামী বর্তমান ।।।।

পিরোজপুরের চাঞ্চল্যকর সাবেক চেয়ারম্যান কে পিটিয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামী বর্তমান চেয়ারম্যান মিঠুন হালদার’সহ তার সহযোগী আসামী র‌্যাব কতৃক গ্রেফতার

র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন ধরণের অপরাধীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে অগ্রণী ভ‚মিকা পালন করে আসছে। সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকটি চাঞ্চল্যকর হত্যার মত নেক্কারজনক ঘটনার সাথে জড়িত আসামীদের দ্রুততম সময়ের মধ্যে আটক করে আইনের আওতায় এনে সাধারণ জনমনে স্বস্তি ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছে র‌্যাব।…।।।।।

তারই ধারাবাহিকতায়, র‌্যাব-৮, সিপিএসসি, বরিশাল এবং র‌্যাব-৬ এর একটি যৌথ আভিযানিক দল অদ্য ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ তারিখ আনুমানিক ০০৩০ ঘটিকায় বাগেরহাট জেলার মোল্লারহাট থানাধীন এলাকা হতে পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ উপজেলার আটঘর কুড়িয়ানা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শেখর কুমার শিকদার চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার প্রধান আসামী ও তার সহযোগী আসামী ১। মিঠুন হালদার (৪৪), পিতা-ফণি ভ‚ষণ হালদার, ২। সুষময় হালদার ।।।।।

(১৮), পিতা-সমীরণ হালদার, উভয় সাং-কুরিয়ানা ৩। জালিস মাহমুদ (২৪), পিতা- মোঃ ফারুক হোসেন, সাং- মুসলিম, ৪। মোঃ আমিনুল ইসলাম (২৩), পিতা- মৃত দেলোয়ার হোসেন, সাং- সংগীতকাঠি, সর্ব থানা- নেছারাবাদ, জেলা- পিরোজপুর’দেরকে আটক করা হয়।

ঘটনার বিবরণে জানা যায় যে, গত ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ ইং তারিখে সময় ১০৩০ ঘটিকায় কুড়িয়ানা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ভিকটিম শেখর কুমার শিকদার ৪২ নং কুড়িয়ানা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রিয়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে যোগদানের জন্য নিজ বাড়ি থেকে রওয়ানা করেন। ভিকটিম কুড়িয়ানা বাজারের পশ্চিম প্রান্তে পৌছা মাত্রই পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা আসামী মিঠুন হালদার (৪৪) এর নেতৃত্বে ২৫/৩০ জন আসামীরা বেআইনী জনতাবদ্ধে ভিকটিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে পথরোধ করে লাঠি, ইট দিয়ে এলোপাথারি মারধর করতে থাকে। মারধরের এক পর্যায়ে ভিকটিম নিস্তেজ হয়ে মাটিতে পড়ে থাকলে আসামীরা মৃত মনে করে চলে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন ভিকটিমকে উদ্ধার করে প্রথমে নেছারাবাদ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, বরিশালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ প্রদান করেন। তারপর তাকে শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, বরিশালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরবর্তীতে ভিকটিমের স্ত্রী মালা মন্ডল (৪৫) বাদী হয়ে পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ থানায় দন্ড বিধির আইনে ১৪৩/৩৪১/৩২৩/৩২৫/৩০৭/৩০২/৩৪ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-১০ তারিখ ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ইং।

উক্ত হত্যার সাথে জড়িত ব্যক্তিরা আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর গ্রেফতার এড়াতে নিজ এলাকা ছেড়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে আত্মগোপন করে। উক্ত ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় নিয়ে আসতে র‌্যাব-৮ (সিপিএসসি ক্যাম্প) গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করে এবং ছায়াতদন্ত শুরু করে। র‌্যাব-৮,সিপিএসসি কোম্পানী বিশেষ গোয়েন্দা নজরদারি ও আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আসামীদের অবস্থান সনাক্ত করে র‌্যাব-৬ এর সহায়তায় বাগেরহাট জেলার মোল্লারহাট এলাকা হতে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উল্লেখিত আসামীদেরকে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *