Top news 24

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের রাজধানী কোয়েটার হোটেলে চালানো ভয়াবহ হামলার দায় স্বীকার করেছে তালেবান। ওই হামলায় এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত চারজন নিহত এবং ১২ জন আহত হয়েছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়, বুধবার (২১ এপ্রিল) গভীর রাতে কোয়েটার সেরেনা হোটেলে ওই হামলা চালানো হয়। তবে দায় স্বীকার করলেও হামলার উদ্দেশ্য নিয়ে তালেবানের পক্ষ থেকে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

হামলার পর বেলুচিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, চীনের রাষ্ট্রদূতকে হত্যার জন্য এ হামলা চালানো হয়েছে। তবে সে সময় তিনি হোটেলে ছিলেন না। আমি একটু আগেই চীনের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে দেখা করেছি। তিনি সুস্থ ও ভালো আছেন। এ ঘটনার তদন্ত চলছে।

এদিকে, পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ এই ঘটনাকে ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড’ হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, কোয়েটা সফররত চীনের রাষ্ট্রদূত আরেকটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন। সে জন্য হামলার সময় তিনি সে হোটেলে ছিলেন না।

বেলুচিস্তান পাকিস্তানের অন্যতম দরিদ্র রাজ্য। বহুদিন ধরেই সেখান সশস্ত্র গোষ্ঠী ‍ও বিচ্ছিন্নতাবাদীরা সক্রিয় রয়েছে। বিচ্ছিন্নতাবাদীরা মনে করে দেশটির গোয়েদার বন্দরে বিনিয়োগ ও বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণ বেলুচিস্তানকে স্বাধীন করার ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াবে। তাই ওই প্রদেশে হামলার লক্ষ্যবস্তু হয়েছে চীন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here