নিজস্ব প্রতিনিধি,,,নড়াইলের কালিয়া উপজেলার পুরুলিয়া ইউনিয়নের দেওয়াডাঙ্গা গ্রামে গতকাল বুধবার (৫ই আগস্ট) সকালে দুপক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে মাসুদ রানা (৩৫) নামে এক ব্যক্তি গুলিতে নিহত হয়েছে। নিহত মাসুদ রানা একই গ্রামের আলী আকবর শেখের ছেলে। এ সংঘর্ষে নারী ও শিশুসহ আহত হয়েছে অন্তত ১০জন। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও নবগঙ্গা নদীর চরের বালি উত্তলোনকে কেন্দ্র করে দেওয়াডাঙ্গা গ্রামের কাজল মোল্যা সমর্থিত লোকজনের সঙ্গে আমিনুর শেখ সমর্থিত লোকজনের দ্বন্দ্ব-সংঘাত চলে আসছিল। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কাজল মোল্যা সমর্থিত লোকজন চরের বালি উত্তলোন করতে গেলে প্রতিপক্ষ আমিনুর শেখ সমর্থিত লোকজন বাঁধা দেয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।সংঘর্ষ চলাকালে প্রতিপক্ষের ছোড়া গুলিতে আমিনুর শেখ সমর্থিত মাসুদ রানাসহ ৭জন গুলিবিদ্ধ হয়। এছাড়া দেশীয় ধারোলো অস্ত্রের আঘাতে ৩জন আহত হয়েছে। স্থানীয় লোকজন গুলিবিদ্ধ মাসুদ রানাকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে আনার পর তিনি মারা যান। আহতদের কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, নড়াইল সদর হাসপাতাল ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: রফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে এ পযন্ত ৫জনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে জোর চেষ্টা চলছে। লাশের ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here