রাজশাহী প্রতিনিধি,,,তানোরে সামাজিক দুরত্ব না মেনে নৌকা বাইচের নামে চেয়ারম্যান মোসলেমের করোনা চাষ

সারোয়ার হোসেন, রাজশাহীঃ রাজশাহীর তানোর উপজেলার কামারগাঁ ইউনিয়নে নৌকা বাইচের নামে চেয়ারম্যান মোসলেম উদ্দিন প্রামানিকের করোনা চাষের অভিযোগ উঠেছে। এমন চাঞ্চল্যকর করোনা চাষের ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কামারগাঁ ইউনিয়নে। চলতি মাসের ০৫ আগস্ট বুধবার বিকেলে উপজেলা কামারগাঁ ইউনিয়নের কামারগাঁ বাজারে। এতে করে ওই এলাকাজুড়ে জনসাধারণের মধ্যে দেখা দিয়েছে চরম আতংক। এমনকি নৌকা বাইচের নামে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই কামারগাঁ বাজারে করা হয়েছে বিশাল জনসভা। আর এই জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মুন্ডুমালা পৌরসভার মেয়র গোলাম রাব্বানী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন। জানা গেছে, তানোর-গোদাগাড়ীর জনপ্রিয় এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী কে তার নিজ এলাকায় হেয়প্রতিপন্য করতে কামারগাঁ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোসলেম উদ্দিন প্রামানিক এ নৌকা বাইচের নামে জনসভার আয়োজন করেন। এছাড়াও বর্তমান রানিং এমপির এলাকায় এসে বিভিন্ন অপপ্রচার করতে দেখা যায় সাবেক জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদকে। যার ফলে বহিরাগত বগি নেতা আসাদুজ্জামান আসাদের অকার্থ ভাষায় এমপি বিরোধী বক্তৃতা দেওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ ও উত্তেজনা সৃষ্টি হলে মঞ্চ থেকে পালিয়ে রক্ষা পায় আসাদুজ্জামান আসাদ সহ ওই অনুষ্ঠানের নেতাকর্মীরা। এসময় উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশ গিয়ে অনুষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেন। অন্যদিকে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই এমন নৌকা বাইচের নামে জনসভা করায় চেয়ারম্যান মোসলেম উদ্দিনকে হুশিয়ার করে পরবর্তীতে যেন প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে যদি কোন অনুষ্ঠান করা হয় তাহলে চেয়ারম্যান মোসলেম উদ্দিনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাবধান করা হয়েছে। তবে চেয়ারম্যান মোসলেম উদ্দিন প্রশাসনের কাছে ক্ষমা চেয়ে আর এমন ভুল হবেনা বলে অনুষ্ঠান সমাপ্ত ঘোষণা করেন। এতে করে শেষ পর্যন্ত জনগণের তোপের মুখে পড়ে পালিয়ে রক্ষা পান জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ। অনুষ্ঠান পন্ডের বিষয়ে চেয়ারম্যান মোসলেম উদ্দিন প্রামানিকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমি যা খুশি করতে পারি কিন্তু এটা একটু বেশি বাড়াবাড়ি করলো প্রশাসন বলে তিনি আরো বলেন, আমিও নানকের লোক দেখে নিব উপজেলা প্রশাসনকে।

সারোয়ার হোসেন
০৫আগস্ট/২০২০ইং
০১৭৬০-৮৫৭৯৮৮

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here