Top news 24

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

বিদেশে কর্মী পাঠানোর নামে টাকা আত্মসাতের মামলায় দণ্ডিত হওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যানকে বরখাস্ত।

বৈদেশিক ও কর্মসংস্থান আইনের মামলায় সাজাপ্রাপ্ত চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার সীমান্ত ইউপি চেয়ারম্যান মঈন উদ্দীন ময়েনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। ওই মামলায় দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান মঈন উদ্দিন ময়েনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

মঙ্গলবার বিকেলে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মো. আবু জাফর রিপন স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন সীমান্ত ইউনিয়ন পরিষদে এসে পৌঁছায়। প্রজ্ঞাপনটি গ্রহণ করেন ইউনিয়ন পরিষদের সচিব শামীম সরোয়ার। এর আগে, প্রজ্ঞাপনটি জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম মুনিম লিংকনের কাছে পৌঁছায়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, গত ২৪ জানুয়ারি চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হন সীমান্ত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মঈন উদ্দিন ময়েন। চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯ অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে সুপারিশও করেছেন। দণ্ডপ্রাপ্ত ওই চেয়ারম্যানের দ্বারা ইউনিয়ন পরিষদে ক্ষমতা প্রয়োগ প্রশাসনিক দৃষ্টিকোণে সমীচীন নয় বলে মনে করে সরকার। এছাড়া তার দ্বারা সংঘটিত অপরাধমূলক কার্যক্রম পরিষদসহ জনস্বার্থের পরিপন্থী বিবেচনায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯ এর ধারা ৩৪(১) অনুযায়ী তাকে তার স্বীয় পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।

এ আদেশ যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে জনস্বার্থে জারি করা হলো এবং তা অবিলম্বে কার্যকর করা হবে। গত ১৭ মে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক ও জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রজ্ঞাপনটি পাঠায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here