top news 24

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

চায়ের স্টলে বসাকে কেন্দ্র করে নেত্রকোনার মদনের প্রত্যন্ত এলাকায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ ও নারীসহ ২৫ জন আহত হয়েছেন। সোমবারের ঘটনা নিয়ে শুক্রবার দুুপুরে উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের পাছআলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে এ সংঘর্ষ হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে চারজনকে আটক করেছে।

সংঘর্ষে আহত আবুল কাশেম, আবু বক্কর, আহাদ, মিলন, জজ মিয়া ও ফয়সালসহ ছয়জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহতদের মধ্যে এসআই বিপ্লব, শাহ আলম, সিরাজুল, মোস্তাকিম, রতন, তারা মিয়া, জীবন মিয়া, লিটন, বাদল, মাইশারা আক্তার ও ফাতেমা আক্তারকে মদন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং অন্যরা পল্লী চিকিৎসকের চিকিৎসাধীন। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার (৪ আগস্ট) সন্ধ্যায় উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের জনতা বাজারে চান মিয়ার চায়ের দোকানে বেঞ্চে বসা নিয়ে বাজার কমিটির সভাপতি আজিজুলের সাথে চান মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়।


এরই জের ধরে শুক্রবার সকালে আলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রাস্তায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন গ্রুপ ও মুক্তিযোদ্ধা নামিজমুদ্দিনের গ্রুপ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে জড়ো হতে থাকেন। পরে জুমার নামাজের আগে দুই পক্ষের মাঝে ঘণ্টাব্যাপী রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। 

এদিকে খবর পেয়ে মদন থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে গেলে তারাও আহত হন। তখন পাছ আলমশ্রী গ্রামের মহসিন ইয়ার ডালিম, শাহ আলম, মোবারক তালুকদার, মো. হেলিমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।বেঞ্চে বসা নিয়েই মূলত দুই পক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য এসআই বিপ্লবসহ ২০-২৫ জন আহত হয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here