Top news 24

অনলাইন ডেস্ক

ইসরাইলি সামরিক বাহিনী গত সোমবার (১১ মে) থেকে গাজায় বিমান হামলা চালাচ্ছে। এ হামলায় অনন্ত ৫৩ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।

ইহুদিবাদী দেশটির সঙ্গে চলা সংঘর্ষে ১৪ ফিলিস্তিনি শিশুকে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও সংঘর্ষ চলাকালে ইসরাইলি বাহিনী কয়েকশ ফিলিস্তিনিকে আটক করেছে। অন্যদিকে, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড থেকে ছোড়া রকেট হামলায় ইসরাইলি সেনাসহ ৬ জন নিহত হয়েছে বলা জানা গেছে।

এদিকে, ইসরাইলি হামলায় গাজায় একটি বহুতল ভবন ধসে পড়েছে। অপর একটি ভবনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ইসরাইল দাবি করেছে, তারা রকেট হামলার উৎসস্থলে এবং হামাসের স্থাপনা লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে। এ ছাড়া হামাসের গোয়েন্দা নেতাদের হত্যা করতে পেরেছে বলে দাবি করেছে ইসরাইল।
গাজা ভূ-খণ্ডে ফিলিস্তিনি এবং ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর মধ্যে হামলা পাল্টা হামলা তীব্র আকার নিয়েছে। জাতিসংঘ আশঙ্কা করছে পরিস্থিতি ‌‌একটা পূর্ণাঙ্গ মাত্রার যুদ্ধের দিকে যাচ্ছে।

ফিলিস্তিনি সংগঠন হামাস ৩৮ ঘণ্টা ধরে এক হাজারের ওপর রকেট ছুঁড়েছে বলে জানাচ্ছে ইসরায়েল। তারা বলছে বেশির ভাগ আক্রমণ হয়েছে তেল আবিবের ওপর। ইসরায়েলও ধ্বংসাত্মক বিমান হামলা চালিয়েছে।

২০১৪ সালের পর এটিই ইসরাইল ও হামাসের মধ্যকার সবচেয়ে বড় সংঘর্ষ। ২০১৪ সালে সাত সপ্তাহের যুদ্ধে ২ হাজার ১০০ গাজাবাসী ও ৭৩ ইসরাইলি নিহত হয়। এবারও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here