Top news 24

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

নিখোঁজের দুইদিন পর রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের পল্টুনের তার ছিড়ে পদ্মায় ডুবে যাওয়া মাইক্রোবাসের নিখোঁজ চালক মো. মারুফ হোসেন (৪৪) এর লাশ উদ্ধার করেছে নৌ পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের পদ্মা নদীর ৭নং ফেরিঘাট এলাকায় একটি লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে দৌলতদিয়া নৌ পুলিশকে খবর দিলে তারা লাশটি উদ্ধার করে। পরে দৌলতদিয়া অপেক্ষমান থাকা তার দুই ভাই ও স্বজনদের খবর দেয় নৌ পুলিশের পরিদর্শক মো. মুন্নাফ আলী। নিহতের দুই ভাই নিশ্চিত করেন লাশটি তার ভাই মো. মারুফ হোসেনের।

নিখোঁজ মারুফ সিলেট জেলার জকিগঞ্জ উপজেলার সুন্দরারচক গ্রামের মৃত মানিক হোসেনের ছেলে।
দৌলতদিয়া নৌ পুলিশের পরিদর্শক মুন্নাফ আলী বলেন, আমরা পদ্মা নদীতে নজর রেখেছিলাম মরদেহের ব্যাপারে। স্থানীয় এক সোর্স তাদের খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে দিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। পরিবারের সদস্যরা নিশ্চিত করেছেন এটি তার ভাইয়ের লাশ। তিনি বলেন উপজেলা প্রশাসনের সাথে পরামর্শ করে লাশটি পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

গত মঙ্গলবার ঢাকা থেকে চুয়াডাঙ্গার যায় মারুফ। সেখান থেকে ঢাকায় ফেরার পথে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের ৫নং ফেরিঘাট থেকে গাড়িসহ পদ্মায় ডুবে যায়। স্থানীয়রা জানান তার ছিড়ে যাওয়ার পর মারুফ গাড়ী থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল দুই ঘণ্টা চেষ্টার পর ফেরিঘাটের কিছু দূর থেকে গাড়িটি উদ্ধার করে। গাড়ী উদ্ধার করতে পারলেও গাড়ির চালকের সন্ধান পায়নি ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here