স্টাফ রিপোর্টার।। ২৪-০২-২০২০ আনুমানিক দুপুর একটা ১-২০ মিনিটে ৫তলা থেকে লাফিয়ে জীবন দিলেন সুমি আক্তার নামে একটি মেয়ে পারিবারিক সূত্রে জানা যায় সুমি আক্তার পিতা মোঃ রবিউল ইসলাম মাতা শিল্পী খাতুন বর্তমান ঠিকানা পূর্ব চন্দনা ওয়ার্ড নং ১৭ থানা বাসন মোহাম্মদ শফিক সাহেবের বাড়ি প্রবাসী গাজীপুর স্থায়ী ঠিকানা পাথাইল হাট থানা সাথিয়া জেলা পাবনা একই গ্রামের ছেলে মোঃ শাকিল মোল্লা পিতা আলম মোল্লা থানা সাথিয়া সুমি আক্তারের সাথে দু’বছর সম্পর্কের পরে বিবাহে আবদ্ধ হন সুমি আক্তারের সাথে বিবাহের দশ মাস সংসার চলে হঠাৎ সংসারের অশান্তি বিরাজ করলে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে প্রায়ই ঝগড়া বদ ব্রণ্ড চলতে থাকে এমতাবস্থায় স্বামী ঢাকা ছেড়ে স্বামীর বাড়িতে গেলে মোবাইলে ঝগড়া হয় সুমি আক্তারের সাথে ঝগড়ার এক পর্যায়ে সুমি আক্তারের নিজস্ব ডায়েরিতে মৃত্যুর পূর্বে সুইসাইড নোট ডায়রিতে লিখে যান এবং ইঙ্গিত দিয়ে যান আমার মৃত্যুর জন্য দায়ী আমার স্বামী শাকিল মোল্লা সুমি আক্তার ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ এর মানবিক বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী ছিলেন এবং এই পুলিশের একটি তদন্ত টিম আসে ঘটনাস্থলে সুইসাইটের ডাইরি বইটা পুলিশের হাতে পড়ে সুমি আক্তারের বাবা বাদী হয়ে গাজীপুর বাসন থানার উপস্থিত হয়ে একটি মেয়ে জামাই শাকিল মোল্লার নামে একটি মামলা দায়ের করেন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here