ক্ষমতা নয়, জনসেবাই মূল লক্ষ্য : প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক : 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা রাজনীতি করি। আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য কিন্তু ক্ষমতা ভোগ করা নয়, জনসেবা করা। দেশকে সমৃদ্ধিশীল হিসেবে গড়ে তোলা। দেশের মানুষের কল্যাণ করা। বুধবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রণালয় ও বিভাগসমূহের ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় ২০১৬-১৭ বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ অবদান রাখায় তিনটি মন্ত্রণালয় ও বিভাগকে সম্মাননা দেয়া হয়। মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো হচ্ছে—বাস্তবায়ন ও মূল্যায়ন বিভাগ, মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় ও কৃষি মন্ত্রণালয়। অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বেগম ইসমত আরা সাদেক, মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম ও প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান বক্তব্য দেন।

যত বাধাই আসুক না কেন, তা অতিক্রম করে সাফল্য অর্জন করা হবে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, এজন্য প্রয়োজন আত্মবিশ্বাস, দৃঢ়তা ও পরিকল্পনা নেয়ার মতো চিন্তাভাবনা। ২০০০ সালে প্রধানমন্ত্রী থাকাবস্থায় আমরা জাতিসংঘে এমডিজি স্বাক্ষর করি। এ ক্ষেত্রে আমরা সাফল্য অর্জন করতে পেরেছি। নিজেদের পরিকল্পনা ছিল বলেই এ সাফল্য এসেছে।

সরকার প্রধান বলেন, আমাদের দেশটাকে উন্নয়ন করতে যেসব পরিকল্পনা গ্রহণ করছি তা যথাযথ বাস্তবায়ন করার লক্ষে আমাদের কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, আগে আমি যখন বিদেশে সফরে যেতাম তখন বাংলাদেশের নাম শুনলে অনেকেই ছোট চোখে দেখতো। তখন আমার খুব লজ্জা লাগতো। তবে একটা পদ্মা সেতু আমাদের দেশের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করে দিয়েছে। বিশ্ববাসী এখন আমাদের মূল্যায়ন করে। আমরা ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে সক্ষম হয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সাহস নিয়ে কাজ করলে কোনো কিছুই বাধা হতে পারে না। যেমন পদ্মা সেতু আমাদের সবচেয়ে বড় প্রমাণ। একটা কাজই আমাদের অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here